default-image

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার এক গ্রামে কিশোরীকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত নুর হোসেন ওরফে নুরুল হক (২০) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ রোববার সকালে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে সোনাইমুড়ী থানা-পুলিশ জানায়, নুর হোসেন দুদিন আগে তাঁর বন্ধুর গায়েহলুদের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে উপজেলার একটি গ্রামে যান। সেখানে বন্ধুর কিশোরী শ্যালিকার সঙ্গে তাঁর পরিচয় হয়। গতকাল শনিবার কিশোরীকে ধর্ষণ করেন তিনি।

কিশোরীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে গেলে নুর হোসেন পালিয়ে যান। পরে রাতেই কিশোরীর বোন বাদী হয়ে নুর হোসেনের বিরুদ্ধে সোনাইমুড়ী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন বলেন, আজ সেনবাগ উপজেলার ছাতাপাইয়া চৌরাস্তা এলাকা থেকে নুর হোসেনকে গ্রেপ্তার করে সোনাইমুড়ী থানা-পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নুর হোসেন ওই কিশোরীকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। নির্যাতনের শিকার কিশোরীকে সকালে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন