বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বক্তারা আগামী ৭২ ঘণ্টার সময়সীমা বেঁধে দিয়ে বলেন, সম্প্রতি ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কে চলাচল করা বাসের ভাড়া দ্বিগুণ করা হয়েছে। সড়কটিতে চলাচল করা অধিকাংশ বাস সিএনজিচালিত হলেও চালক ও সহকারী প্রায়ই জোর করে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করেন। এ সময় অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাও ঘটে। ন্যায্য ভাড়া নির্ধারণ করা না হলে ২৯ নভেম্বর থেকে টানা চার দিনব্যাপী বিভিন্ন এলাকায় প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করা হবে।

কর্মসূচিতে সোমবার জকিগঞ্জের বাবুর বাজারে বিকেল চারটায় প্রতিবাদ সভা, পরদিন মঙ্গলবার আটগ্রাম স্টেশনে বিকেল চারটায় প্রতিবাদ সভা, ১ ডিসেম্বর বিকেল চারটায় কালিগঞ্জ বাজারে প্রতিবাদ সভা, ২ ডিসেম্বর জকিগঞ্জের শাহগলি বাজারে প্রতিবাদ সভা ঘোষণা করা হয়।

সিলেটে অবস্থানরত জকিগঞ্জ উপজেলার রাজনৈতিক-সামাজিক নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়ের মাধ্যমে ও সবার মতামতের ভিত্তিতে আন্দোলনের কর্মসূচির ঘোষণা করা হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন মাও. আলাউদ্দীন তাপাদার, কে এম মামুন, হাসান আহমদ, আবদুল কুদ্দুস, আবদুল কাইয়ুম, নজরুল ইসলাম, যুগ্ম সদস্যসচিব মাছুম আহমদ, মো. আল আমিন, পরিষদের সদস্য আল-ইসলাহ নেতা মাও. জুবায়ের আহমদ, এহসান মো. শামীম, আবদুস সাত্তার, জকিগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আবদুল মুকিত, যুবনেতা ময়নুল হক, সোহায়েল আহমদ, ছাত্রনেতা আবু সায়িদ আশিক, মাজেদ আহমদ, আজমল হোসেন ও রেজাউল ইসলাম প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন