বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওই সংঘর্ষে গুরুতর আহত রিপন শেখ (৩০) ও তাঁর বাবা বকশো শেখকে (৬৫) নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওই দুজন আওয়ামী লীগের প্রার্থীর সমর্থক। কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা গোলাম রব্বানী বলেন, হাতাহাতি ও পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার পর প্রায় এক ঘণ্টা ভোট গ্রহণ স্থগিত রাখা হয়।

দুপুর ১২টায় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান ও পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায়সহ প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা ওই ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনে আসেন। এরপর দুপুর ১২টায় আবার ভোট গ্রহণ শুরু হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী এস এম পলাশ তাঁর কয়েকজন সমর্থক নিয়ে ওই ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনে আসেন। এ সময়ে ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী আকরাম হোসেন ভূঁইয়ার সমর্থকদের সঙ্গে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় ভোট গ্রহণ স্থগিত রাখা হয়। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। দুপুর ১২টায় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান ও পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায়সহ প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা ওই ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনে আসেন। এরপর দুপুর ১২টায় আবার ভোট গ্রহণ শুরু হয়।

নড়াইল সদর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) শিমুল কুমার দাস বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন