default-image

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলায় কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে আরও এক ব্যক্তি মারা গেছেন। আজ রোববার দুপুর সাড়ে ১২টায় দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান। এ নিয়ে পঞ্চগড় জেলায় করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে পাঁচজন মারা গেলেন। দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. হাসিনুর রহমান করোনায় ওই ব্যক্তির মারা যাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মারা যাওয়া ওই ব্যক্তির নাম হরিশ চন্দ্র রায়। তিনি পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার সোনাহার ইউনিয়নের বাসিন্দা। তাঁর বয়স ৫৫ বছর।

দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ও ওই ব্যক্তির পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, প্রায় এক মাস আগে হরিশ চন্দ্রের জন্ডিস, যক্ষ্মা ও ফুসফুসে ক্যানসার ধরা পড়ে। সম্প্রতি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁকে রংপুরে একটি বেসরকারি হাসপতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার পর ১৮ জুলাই তাঁর শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। পরে ওই বেসরকারি হাসপাতাল থেকে তাঁকে বাড়িতে নিয়ে আসেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, গত শনিবার সকালে বুকে ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে হরিশ চন্দ্রকে দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান তাঁর স্বজনেরা। কিন্তু করোনায় অক্রান্ত হওয়ায় তাঁকে সেখান থেকে পঞ্চগড় করোনা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। ওই দিন বিকেলে অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এরপর রোববার দুপুরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. হাসিনুর রহমান বলেন, রোববার বিকেলে দেবীগঞ্জের সোনাহার এলাকায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিশেষ সতর্কতার সঙ্গে ওই ব্যক্তির লাশ তাঁদের পারিবারিক শ্মশানে সৎকার করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন