default-image

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় খননযন্ত্র (ড্রেজার) দিয়ে করতোয়া নদী পুনঃখননে তোলা বালুতে চাপা পড়ে মো. হৃদয় (৭) ও আল আমিন (৮) নামের দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে উপজেলার শিকারপুর-কপালকাটা এলাকায় করতোয়া নদীর ধারে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মো. হৃদয় শিকারপুর এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে এবং আল আমিন একই এলাকার হাসান আলীর ছেলে।

নিহত শিশু দুটির পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে বেংহাড়ি বনগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য তসলিম উদ্দিন বলেন, শিকারপুর-কপালকাটা এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতায় করতোয়া নদীর পুনঃখননের কাজ চলছে। গতকাল বিকেলে হৃদয় ও আল আমিন বাড়ি থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে কপালকাটা এলাকায় করতোয়া নদীর ধারে রাখা পুনঃখননে তোলা বালুর মধ্যে খেলতে যায়। সন্ধ্যায় তারা বাড়িতে না ফেরায় খুঁজতে বের হন দুই পরিবারের সদস্যরা। স্থানীয় লোকজনও তাঁদের সঙ্গে যুক্ত হন।

স্থানীয় লোকজন নদীর ধারে রাখা বালুর মধ্যে একটি গর্তের মতো জায়গা দেখতে পেয়ে এগিয়ে যান। সেখানে একটি শিশুর পা দেখা যায়। পরে বালু সরিয়ে সেখান থেকে দুটি শিশুকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, বালুর নরম স্তূপে খেলতে খেলতে গর্তে ঢুকে বালুচাপায় শিশু দুটি মারা গেছে। শিশু দুটির মরদেহ উদ্ধারের পর বোদা থানার পুলিশকে খবর দেন স্থানীয় লোকজন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশু দুটির মরদেহের সুরতহাল করে।

বোদা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জাহিদুল ইসলাম সরকার বালুচাপায় দুই শিশুর মৃত্যুর খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন