বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আটোয়ারী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. দুলাল উদ্দীন বলেন, আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে আটক ব্যক্তিদের ওই সব মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে পঞ্চগড় আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে আটোয়ারী থানা-পুলিশ।

আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আটোয়ারী থানায় অস্ত্র চোরাচালান, মাদক ও অনুপ্রবেশের অভিযোগে পৃথক তিনটি মামলা করেছেন বালিয়াডাঙ্গী থানার এসআই আবদুস সোবহান।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন ভারতের উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুর থানার নান্দাই কমলাগাছ এলাকার মো. গফুর আলম (২৫), ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার আমজানখোর ইউনিয়নের হরিণমারী গ্রামের দেলোয়ার হোসেন (২৮), আবদুর রাজ্জাক (২৩), একই ইউনিয়ের গোয়ালতলী গ্রামের শ্রী বিকাশ পাল (৩৫), কোটপাড়া গ্রামের শ্রী বিষ্ণু পাল (২৯), যুগীহারা গ্রামের জাকির হোসেন (২৫), একই এলাকার হজরত আলী (২৭), কালিবাড়ী গ্রামের মনিরুল ইসলাম (৩২), একই উপজেলার বড়বাড়ি ইউনিয়নের কেরিয়াতি গ্রামের নাসিরুল ইসলাম (২৪) ও পশিরুল ইসলাম (২৮)।

default-image

পুলিশ জানায়, গতকাল রাত সাড়ে আটটার দিকে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার আমজানখোর ইউনিয়নের ভারতীয় সীমান্তঘেঁষা এলাকা ক্যাম্পের হাট থেকে চোরাকারবারিরা একটি মাইক্রোবাস ও একটি ডিজেলচালিত তিন চাকার যান পাগলুতে মাদকদ্রব্য নিয়ে পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার দিকে যাচ্ছে বলে খবর পায় বালিয়াডাঙ্গী থানা-পুলিশ। খবর পেয়ে ঠাকুরগাঁও জেলার রানীশংকৈল সার্কেলের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার মো. তোফাজ্জল হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল তাঁদের ধাওয়া করে। রাত সোয়া ৯টার দিকে মাদকদ্রব্য বহনকারী মাইক্রোবাস ও পাগলুটি আটোয়ারী উপজেলার আলোয়াখোয়া ইউনিয়নের বালিয়া লক্ষ্মীথান এলাকায় পৌঁছালে চোরাকারবারিরা পুলিশকে লক্ষ্য করে কয়েকটি গুলি ছোড়েন। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও ছয়টি রাবার বুলেট ছোড়ে। একপর্যায়ে মাইক্রোবাসে থাকা ১ জন ভারতীয় নাগরিকসহ ১০ জনকে আটক করে পুলিশ।

এ সময় তাঁদের কাছ থেকে ২টি তাজা গুলি, ১টি ওয়ান শুটারগান ও ৩২টি ইয়াবা জব্দ করা হয়। একই সঙ্গে পুলিশ চোরাকারবারিদের ব্যবহৃত মাইক্রোবাসটি জব্দ করে। অভিযানের সময় পাগলুতে থাকা অন্য চোরাকারবারিরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন