জামিনে মুক্ত হওয়া ব্যক্তিরা হলেন জেলা ছাত্রদলের নাট্যবিষয়ক সম্পাদক জুয়েল রানা (২৯), ছাত্রদলের কর্মী রাশেদুল হক আকরাম (২৯), পারভেজ মোশাররফ (২৫), শাহিনুর রহমান (২৫) ও আসাদুল ইসলাম (২০।

পুলিশ জানায়, পূর্বানুমতি ছাড়া ঈদের বাজার ও তারাবিহর সময় শহরে আকস্মিকভাবে জমায়েত হয়ে মিছিল করে যানজট সৃষ্টিসহ অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি সৃষ্টির আশঙ্কায় তাঁদের আটক করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ছাত্রদলের নবগঠিত আংশিক কমিটি ঘোষণার জন্য তারেক রহমানকে কৃতজ্ঞতা এবং নতুন কমিটিকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে গতকাল রাতে হঠাৎ পঞ্চগড় শহরে ছাত্রদলের কয়েকজন নেতা-কর্মী একটি মিছিল বের করেন। জেলা ছাত্রদলের ত্যাগী ও নির্যাতিত নেতা-কর্মীদের ব্যানারে শহরের এম আর কলেজ মোড় থেকে মিছিলটি বের হয়ে পঞ্চগড় বাজারের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

মিছিলে ২৫–৩০ নেতা-কর্মী অংশ নেন। মিছিল শেষে তাঁরা জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে একটি পথসভা করার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে পাঁচজন নেতা-কর্মীকে আটক করে। এ সময় অন্য নেতা–কর্মীরা পালিয়ে যান।

আটক হওয়া ব্যক্তিদের পক্ষের আইনজীবী ও পঞ্চগড় জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবদুল বারী বলেন, আজ দুপুরে ১৫১ ধারায় পুলিশের চালান দেওয়া ওই ব্যক্তিদের জামিন আবেদন করলে আদালত শুনানি শেষে তাঁদের জামিন মঞ্জুর করেন। পরে তাঁরা মুক্ত হয়ে বাড়িতে ফিরেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন