পটুয়াখালীতে কোভিড রোগী হাজার ছাড়াল

বিজ্ঞাপন
default-image

পটুয়াখালী জেলায় নতুন করে ১৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তদের মধ্যে শিক্ষক, স্বাস্থ্যকর্মী, এনজিওকর্মী, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য রয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় কোভিডে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল এক হাজার ১৬ জন। বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ল্যাব থেকে পাঠানো নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন আসার পর গতকাল বুধবার রাতে পটুয়াখালী সিভিল সার্জন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, কোভিডের উপসর্গ নিয়ে পটুয়াখালীর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে গতকাল বুধবার ভোরে মারা যাওয়া ব্যক্তি কোভিডে আক্রান্ত ছিলেন। বিকেলে তাঁর নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন পজিটিভ এসেছে। পটুয়াখালী সিভিল সার্জন কার্যালয় এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান জানান, হাসপাতালে উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তির বাড়ি পটুয়াখালী শহরের সবুজবাগ এলাকায়। ওই ব্যক্তির বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। জ্বর-হাঁচি-কাশি নিয়ে সোমবার সকালে ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। মঙ্গলবার তাঁর নমুনা সংগ্রহ করা হয়। গতকাল বুধবার ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই ব্যক্তি মারা যান। গতকাল বিকেলে তাঁর নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদনে পজিটিভ এসেছে।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানায়, জেলায় নতুন করে যে ১৮ জনের শরীরে কোভিডের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে, এঁদের মধ্যে সদর উপজেলায় ১১ জন, কলাপাড়ায় ৪ জন এবং দুমকি, বাউফল ও গলাচিপায় ১ জন করে রয়েছেন।

পটুয়াখালীর সিভিল সার্জন মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম জানান, জেলায় বুধবার নতুন করে ৬ জন সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট সুস্থ হয়েছেন ৬১৮ জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১২জন এবং বাড়িতে আইসোলেশনে (বিচ্ছিন্ন থেকে চিকিৎসাধীন) আছেন ৩৫৮ জন। কোভিডের সংক্রমণ হয়ে জেলায় এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৩০ জন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন