পটুয়াখালীতে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট একজনের মৃত্যু

বিজ্ঞাপন
default-image

জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা হাসপাতালে বুধবার এক বৃদ্ধ মারা গেছেন। ওই ব্যক্তি বুধবার সকালে হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত পৌনে ১১টায় মারা যান। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) মো. কামরুজ্জামান বলেন, করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তির বাড়ি গলাচিপা উপজেলার পাতাবুনিয়া গ্রামে। ৮০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি বেশ কয়েক দিন ধরে জ্বর ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। মারা যাওয়ার আগেই নমুনা সংগ্রহ করে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। তাঁর বাড়ির লোকজনের নমুনা সংগ্রহের প্রস্তুতি চলছে। লাশ স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন করা হয়েছে।

এদিকে পটুয়াখালীতে নতুন করে পাঁচজনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে দুমকি উপজেলার ২ জন, মির্জাগঞ্জের ২ জন এবং দশমিনার ১ জন। জেলায় এ নিয়ে শনাক্ত করোনা রোগীর সংখ্যা এক হাজার ৬৬। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৭১৪ জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১৬ জন। বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন ৩০৩ জন।

পটুয়াখালীর সিভিল সার্জন মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বুধবার পর্যন্ত জেলায় ৬ হাজার ২২৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬ হাজার ২৩৮ জনের নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন এসেছে। তার মধ্যে এক হাজার ৬৬ জনের প্রতিবেদন করোনা ‘পজিটিভ’ এসেছে। জেলায় করোনা সংক্রমিত হয়ে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৩৩ জন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন