বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মৎস্য ব্যবসায়ী শাহজাহান শেখ জানান, মাছটি কেনার পর ফেরিঘাটের পন্টুনের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়। অনেকে মাছটি দেখতে আসেন। তিনি রাতে ঢাকার কাঁচপুর এলাকার এক বড় ব্যবসায়ীর কাছে মাছটি ৪৭ হাজার টাকায় বিক্রি করেন। মাছটি রাত ১২টার দিকে লোক মারফত ঢাকার ওই ব্যবসায়ীর বাসায় পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেন তিনি।

গোয়ালন্দ উপজেলা মৎস্য ব্যবসায়ী রেজাউল শরীফ বলেন, পদ্মায় এত বড় বাগাড় মাছ খুব কম ধরা পড়ে। এত বড় বাগাড় মাছ ধরা পড়ার বিষয়টি জেলেদের জন্য আনন্দের। পানি কমতে থাকায় এখন আরও ভালো ও বড় মাছ পাওয়া যাবে। তবে পদ্মায় ইলিশ মাছ ধরা না পরায় তিনি হতাশ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন