বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঢাকার দোহারের কুশুমহাটি ইউনিয়নের জেলে শেরজান মোল্লা জানান, তাঁরা আট জেলে একসঙ্গে বড় ফাঁসের জাল দিয়ে পদ্মা নদীতে মাছ ধরে থাকেন। প্রতিদিনের মতো গতকাল সোমবার দিবাগত রাতে তাঁরা সারা রাত ধরে নদীতে মাছ ধরেন। তবে রাতে খুব বেশি মাছ ধরা পড়েনি। পরে আজ ভোরের দিকে তাঁদের জালে বিশাল আকৃতির একটি পাঙাশ ধরা পড়ে।

ভোরের আলো ফোটার পর শেরজান মোল্লা মাছটি চরভদ্রাসন সদর বাজারের আড়তে নিয়ে এলে সেটি মাছ ব্যবসায়ী শামসু ব্যাপারী ২১ হাজার টাকায় কেনেন।

শামসু ব্যাপারী বলেন, ‘এত বড় মাছ সচরাচর ধরা পড়ে না। তাই মাছটি সবাই খেতে চাইবে। এ জন্য মাছটি দ্রুত কিনে ফেললাম। পরে এটি কেটে ১২ ভাগ করে প্রতি ভাগ ২ হাজার টাকা হিসাবে মোট ২৪ হাজার টাকায় বিক্রি করেছি।’

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এস এম মাহমুদুল হাসান বলেন, কিছুদিন ধরে নদীতে মাছ শিকার বন্ধ ছিল। ফলে এ এলাকায় মাছগুলো অভয়াশ্রম হিসেবে গড়ে তুলেছিল। ফলে এখন বড় বড় মাছ ধরা পড়ছে। নদীর মাছ বরাবরই সুস্বাদু। আর পদ্মা নদীর বড় পাঙাশের তো কোনো তুলনাই চলে না।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন