বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এদিকে পদ্মা নদীতে ধরা পড়ছে হরেক রকমের বড় বড় মাছ। গোয়ালন্দে পদ্মা নদীতে ধরা পড়া ১১ কেজি ওজনের একটি ঢাঁই মাছ ৩৫ হাজার টাকায় বিক্রি হয়েছে। মাছটি জেলে রামকৃষ্ণ হালদারের জালে ধরা পড়ে। তাঁর বাড়ি মানিকগঞ্জের জাফরগঞ্জ এলাকায়।

স্থানীয় মৎস্যজীবীরা বলেন, গতকাল রাতে সঙ্গীদের নিয়ে নদীতে মাছ ধরতে যান রামকৃষ্ণ। আজ শনিবার ভোরে জালে ধরা পড়ে বড় একটি ঢাঁই মাছ। মাছটি দৌলতদিয়া ফেরিঘাট টার্মিনাল–সংলগ্ন মাছের বাজারে নিয়ে মৎস্য ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মোহন মণ্ডলের আড়তে তোলেন। ওজন দিয়ে দেখা যায়, মাছটি প্রায় ১১ কেজির। পদ্মা নদীতে এত বড় ঢাঁই মাছ সাধারণত কমই দেখা যায়। এ সময় নিলামে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে দৌলতদিয়ার ৫ নম্বর ফেরিঘাট এলাকার শাকিল-সোহান মৎস্য আড়তের স্বত্বাধিকারী শাহজাহান শেখ ৩৪ হাজার টাকায় মাছটি কেনেন।

default-image

শাহজাহান শেখ বলেন, ঢাকার এক ব্যবসায়ীর কাছে ৩ হাজার ২০০ টাকা কেজি দরে তিনি প্রায় ৩৫ হাজার টাকায় ঢাঁই মাছটি বিক্রি করেন। এত বড় ঢাঁই মাছ সাধারণত খুব কম দেখা যায়। পদ্মা নদীর মাছ এমনিতে অনেক সুস্বাদু। এ কারণে এসব মাছের চাহিদা সব সময় বেশি থাকে। ফলে দাম একটু বেশি। ঢাঁই মাছটি দেখতে অনেকে ভিড় করেন।

গোয়ালন্দ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা রেজাউল শরীফ বলেন, নদীর পানি কমতে শুরু করেছে। এ কারণে এখন বিভিন্ন ধরনের মাছ ধরা পড়ছে। এটা জেলেদের জন্য আনন্দের খবর। পানি আরও কমলে আরও মাছ পাওয়া যাবে বলে তিনি আশাবাদী।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন