default-image

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলায় পদ্মার দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের কাছে ধরা পড়েছে ৩৪ কেজি ওজনের একটি বাগাড় মাছ। মাছটি আজ শুক্রবার সকালে দৌলতদিয়া ঘাট মাছ বাজারে নিলামে বিক্রি হয়। স্থানীয় মাছ ব্যবসায়ী চান্দু মোল্লা ১২০০ টাকা কেজি দরে মাছটি কিনেছেন।

দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকার চাঁদনি-আরিফা মৎস্য আড়তের স্বত্বাধিকারী চান্দু মোল্লা বলেন, প্রতিদিনের মতো তিনি আজ ভোরে দৌলতদিয়া ঘাট টার্মিনাল-সংলগ্ন মাছ বাজারে যান। স্থানীয় দেলোয়ার সরদার নামের আড়তদারের ঘরে বিশাল বাগাড় মাছটি নিলামে তোলা হয়েছে দেখতে পান। নিলামে অংশ নিয়ে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে তিনি ১২০০ টাকা কেজি দরে মাছটি কিনে নেন। পরে মাছটি ওজন দিয়ে দেখতে পান ৩৪ কেজি হয়েছে। সেই হিসাবে মাছটির দাম আসে ৪০ হাজার ৮০০ টাকা। মাছটি দৌলতদিয়ার ৫ নম্বর ফেরিঘাটের পন্টুনের সঙ্গে বেঁধে রেখেছেন। কেজিপ্রতি ৫০ থেকে ১০০ টাকা বেশি পেলেই তিনি মাছটি বিক্রি করে দেবেন। এ জন্য তিনি ঢাকায় বিভিন্ন পরিচিতজনের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করে যাচ্ছেন।

স্থানীয় ব্যবসায়ী ও জেলেরা বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সঙ্গীদের নিয়ে নদীতে মাছ শিকার করতে যান সাদ্দাম সরদার। আজ ভোরের দিকে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের উজান থেকে বড় আকারের একটি বাগাড় মাছ পান তিনি।

গোয়ালন্দ উপজেলার ভারপ্রাপ্ত মৎস্য কর্মকর্তা রেজাউল শরীফ বলেন, পদ্মায় এ বছর মাঝেমধ্যে বড় বড় সুস্বাদু মাছ ধরা পড়ছে। এসব মাছের প্রজননক্ষমতা বাড়াতে মৎস্য সংরক্ষণের জন্য আলাদা অভয়াশ্রম গড়ে তোলা দরকার। যদি সেটা করা যায়, তাহলে এ ধরনের বড় বড় দেশীয় সুস্বাদু মাছের কোনো অভাব হবে না।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন