default-image

নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার বদলকোর্ট ইউনিয়নের দক্ষিণ বদলকোর্ট গ্রামে সমর উদ্দিন ফকিরবাড়ি থেকে মাদ্রাসাপড়ুয়া এক শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার নাম ইয়াছিন আরাফাত (৮)। স্থানীয় লোকজনের তথ্যের ভিত্তিতে চাটখিল থানার পুলিশ শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে লাশটি উদ্ধার করে। শিশুটি স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় দ্বিতীয় জামাতে পড়ত।
শিশুটির পরিবার জানিয়েছে, খেলার সময় গলায় রশি পেঁচিয়ে তার মৃত্যু হয়। পুলিশ বলছে, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন ছাড়া এ বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলা সম্ভব নয়। উদ্ধারের পর শুক্রবার বিকেলে লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালীর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহত ইয়াছিন আরাফাত গ্রামের প্রবাসী তাজুল ইসলামের ছেলে। তার মায়ের নাম মনছুরা বেগম।

বিজ্ঞাপন

নিহত ইয়াছিন আরাফাতের পরিবারের সদস্য ও স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী চাটখিল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হাফিজ খান প্রথম আলোকে বলেন, সকাল সাড়ে নয়টার দিকে শিশু ইয়াছিন ঘরের বাইরে রশি নিয়ে খেলতে বের হয়। কিছু সময় পর পরিবারের সদস্যরা গলায় ফাঁস লাগা অবস্থায় গাছের সঙ্গে ইয়াসিনকে দেখতে পান। তাৎক্ষণিক তাঁরা রশি থেকে নামিয়ে দেখেন ইয়াছিন মারা গেছে। পরে বিষয়টি থানায় অবহিত করা হলে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।
এসআই হাফিজ খান বলেন, পরিবারের সদস্যরা গলায় ফাঁস পড়ে শিশুটি মারা গেছে জানালেও তাঁরা গিয়ে লাশ ঘরে পেয়েছেন। তবে লাশের গলায় কালো দাগ দেখা গেছে। এ ছাড়া শরীরের অন্য কোথাও কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার আগে এই মৃত্যুর বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলা সম্ভব নয়।

চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, শিশুর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় আপাতত থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হবে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে যদি অন্য কোনো কিছু পাওয়া যায়, সে অনুযায়ী আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

মন্তব্য পড়ুন 0