বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অব্যাহতি পাওয়া চারজন হলেন সিলেটের কামালবাজার ফাজিল মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক শাহ আলম, হযরত শাহচান্দ শাহকালু ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক হোসেন রজবী মুন্সি, আল-ইর্শ্বাদ লতিফিয়া দাখিল মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক মেজবাহুল ইসলাম ও বিশ্বনাথ দারুল উলুম ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসার সহকারী গ্রন্থাগারিক রুহুল কুদ্দুছ।

বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুমন চন্দ্র দাশ বলেন, পরীক্ষা কেন্দ্রে স্মার্টফোন বহন নিষিদ্ধ, এটি অপরাধ। রোববার সকালে উপজেলার তিনটি পরীক্ষা কেন্দ্রে পরিদর্শন করেছেন। উপজেলার দারুল উলুম ইসলামিয়া কামিল এম এ মাদ্রাসা পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব পালনকালে চার শিক্ষকের কাছে স্মার্টফোন পাওয়া যায়। এ জন্য তাঁদের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিতে কেন্দ্রের সচিবকে নির্দেশ দিয়েছেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রসচিব চার শিক্ষককে পরীক্ষার দায়িত্ব পালন থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন। তাঁদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রে দায়িত্ব পালনে অবহেলার অভিযোগ আনা হয়েছে।

কেন্দ্রের সচিব ও দারুল উলুম কামিল এম এ মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মো. নোমান আহমদ বলেন, ইউএনও কেন্দ্রে পরিদর্শনকালে কেন্দ্রের দায়িত্ব পালন করা চার শিক্ষকের কাছে স্মার্টফোন পান। এ সময় তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ইউএনও তাঁকে নির্দেশ দেন। সেই নির্দেশ অনুযায়ী, চার শিক্ষককে তাঁদের দায়িত্ব থেকে স্থায়ীভাবে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তাঁরা পরীক্ষায় আর কোনো দিন দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন