default-image

শেরপুরের নকলায় আসাদুজ্জামান মানিক (২৬) নামে হেফাজতে ইসলামের এক কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলার উরফা ইউনিয়নের বারমাইসা গ্রামের ইসলাম আলীর ছেলে। গতকাল সোমবার রাতে নকলা থানার পুলিশ গ্রামের বাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে। তাঁর বিরুদ্ধে গত ২৬ মার্চ ঢাকার পল্টনে সহিংসতা ও নাশকতায় অংশ নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মুশফিকুর রহমান হেফাজতে ইসলামের ওই কর্মীকে গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। সোমবার রাতেই পল্টন থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তরের পর পুলিশ তাঁকে ঢাকায় নিয়ে যায় বলে জানান ওসি।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে সফর ঘিরে ঢাকার পল্টনে হেফাজতে ইসলামের সহিংসতা-নাশকতায় অংশ নিয়েছিলেন আসাদুজ্জামান।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে সফর ঘিরে ঢাকার পল্টনে হেফাজতে ইসলামের সহিংসতা-নাশকতায় অংশ নিয়েছিলেন আসাদুজ্জামান। এ ঘটনায় পল্টন থানায় মামলা হলে তিনি আত্মগোপন করেন। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নকলা থানার পুলিশ সোমবার রাতে আসাদুজ্জামানকে বারমাইসা গ্রামের বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে। পরে তাঁকে পল্টন থানা-পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) এনামুল হকের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

গ্রেপ্তার আসাদুজ্জামান মানিক ২০১৩ সালে নকলার বারমাইসা দাখিল মাদ্রাসা থেকে দাখিল পরীক্ষা ও ২০১৫ সালে নকলার শাহরিয়া ফাজিল মাদ্রাসা থেকে আলিম পরীক্ষা পাস করার পর বর্তমানে ঢাকার এম এম আলী কলেজে স্নাতক সম্মান শ্রেণিতে পড়ালেখা করছেন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন