বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আহত ব্যবসায়ী জসিম বলেন, তাঁর মালিকানাধীন খননযন্ত্রটি পায়রাকুঞ্জ ফেরীঘাট এলাকার ব্যবসায়ী এনামুল ও রানা নামের অপর দুই ব্যবসায়ী মিলে ভাড়া নিয়ে এক মাস ধরে বালু উত্তোলন ও তাঁদের ব্যবসায়িক কাজে ব্যবহার করছেন। কিন্তু ওই ব্যবসায়ীরা নিয়মিত ভাড়া পরিশোধ না করায় তাঁদের কাছে ১ লাখ ৩৪ হাজার টাকা বকেয়া পড়ে যায়। বকেয়া টাকা চাওয়ার পরও টাকা না পেয়ে তিনি তাঁর খননযন্ত্রটি দিয়ে বালু উত্তোলন বন্ধ করে দেন। পরে এ নিয়ে জসিম মৃধার সঙ্গে এনামুল ও রানার দ্বন্দ্ব শুরু হয়। পরে পাওনা টাকা দেওয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে এনামুল ও রানা সন্ত্রাসীদের নিয়ে তাঁর ওপর হামলা চালান।

তবে এনামুল ও রানা তাঁদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, ব্যবসায়ী দ্বন্দ্বের কারণে তাঁদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার মোর্শেদ জানান, ব্যবসায়িক দ্বন্দ্বে নিজেদের মধ্যে বিরোধকে কেন্দ্র করে এ হামলা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। আহত ব্যবসায়ী জসিম মৃধা বরিশালে চিকিৎসাধীন। তবে এ ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন