পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হাবিবুর ও ফয়জুর দুজনেই গ্রাম থেকে হাঁস-মুরগি কিনে ভোলাগঞ্জ বাজারসহ বিভিন্ন বাজারে বিক্রি করতেন। সম্প্রতি ফয়জুরের কাছ থেকে ৮০০ টাকা ধার নিয়েছিলেন হাবিবুর। গতকাল রাতে পাওনা টাকা ফেরত চান ফয়জুর। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে ফয়জুর লাঠি দিয়ে হাবিবুরের মাথায় আঘাত করেন। গুরুতর আহত অবস্থায় হাবিবুরকে উদ্ধার করে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় আজ রোববার বেলা দেড়টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ থানা-পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত ফয়জুর রহমানকে আটক করেছে। কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুকান্ত চক্রবর্তী বলেন, পাওনা টাকা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত ব্যক্তির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। নিহত ব৵ক্তির পরিবার থানায় অভিযোগের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন