বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জেনুইন এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড সূত্রে জানা গেছে, আজ সকালে চট্টগ্রাম থেকে প্রতিষ্ঠানটির ৫০ সদস্যের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। এ ছাড়া নদীপথে প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব ছয়টি উইন্স বার্জে (উদ্ধারকারী বিশেষ জাহাজ) ৬টি পন্টুনসহ পাটুরিয়ায় আসছে। প্রতিটি পন্টুন দিয়ে ৪০০ টন ওজন ক্ষমতাসম্পন্ন বস্তু তোলা যায়।

প্রতিষ্ঠানটির ডুবুরি দলের প্রধান আবদুর রহমান বলেন, উদ্ধারকারী সরঞ্জামাদি নিয়ে তাঁদের উদ্ধারকারী দলের আরও কয়েক সদস্য পাটুরিয়ায় আসছেন। নদীর তলদেশ থেকে অক্ষত অবস্থায় ফেরিটি তুলতে তিন থেকে চার দিন সময় লাগতে পারে বলে জানান তিনি।

default-image

জেনুইন এন্টারপ্রাইজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপক অজয় দেবনাথ প্রথম আলোকে বলেন, ‘সরকারি সিদ্ধান্তে আমরা ফেরি উত্তোলনে দ্রুত কাজ করব। উদ্ধারকাজে খরচের বিষয়ে প্রাথমিকভাবে দুই কোটি টাকার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। তবে পরবর্তী সময়ে উদ্ধারমূল্য পরিবর্তন হতে পারে।’

ঘাটসংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত বুধবার সকালে পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ঘাটের পন্টুনে ভেরামাত্র যানবাহন নিয়ে ফেরি আমানত শাহ পদ্মা নদীতে ডুবে যায়। ডুবে যাওয়া যানবাহন উদ্ধারে কাজ শুরু করে ‘হামজা’। এতে ফায়ার সার্ভিস, নৌবাহিনী ও কোস্ট গার্ডের সদস্যরা অংশ নেন। ঘটনার চতুর্থ দিনে শনিবার সকাল থেকে রুস্তম নামের বিআইডব্লিউটিএর উদ্ধারকারী আরেকটি জাহাজ উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন