লকডাউনের কারণে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ও রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া নৌপথে আজ সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত পারাপার বন্ধ থাকায় পাটু্রিয়া প্রান্তে পণ্যবাহী গাড়ির প্রচণ্ড চাপ পড়ে। এতে দীর্ঘ সারিতে আটকা পড়ে সহস্রাধিক যানবাহন। আজ দুপুরে পাটুরিয়া প্রান্তে
লকডাউনের কারণে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ও রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া নৌপথে আজ সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত পারাপার বন্ধ থাকায় পাটু্রিয়া প্রান্তে পণ্যবাহী গাড়ির প্রচণ্ড চাপ পড়ে। এতে দীর্ঘ সারিতে আটকা পড়ে সহস্রাধিক যানবাহন। আজ দুপুরে পাটুরিয়া প্রান্তেপ্রথম আলো

লকডাউনে সরকারি নির্দেশনা মেনে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ও রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া নৌপথে আজ সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত কার্যত ফেরি বন্ধ ছিল। তবে এ সময় দুটি ছোট ফেরিতে করে ঘাটে আটকে থাকা কয়েকটি যাত্রীবাহী বাস, রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স ও বিভিন্ন ব্যক্তিগত গাড়ি পারাপার করা হয়।

এদিকে নৌপথ পার হতে না পারায় পাটুরিয়া ঘাটসহ আশপাশে সহস্রাধিক পণ্যবাহী যানবাহন আটকা পড়ে। এতে দেশের দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলোতে পণ্য পরিবহনে মারাত্মক বিপর্যয় ঘটে। পরে বেলা একটার পর থেকে ফেরি চালু করা হলে এসব পণ্যবাহী গাড়িগুলো পারাপার করা হয়।

default-image

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থার (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, লকডাউন বাস্তবায়ন করতে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী সকাল ছয়টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়। তবে গতকাল রোববার সন্ধ্যায় ঝড়ের কারণে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় ঘাট এলাকায় কয়েকটি যাত্রীবাহী বাসসহ বিভিন্ন যানবাহন আটকা পড়েছিল। সকালে দুটি ছোট ফেরিতে আটকা পড়া এসব যাত্রীবাহী বাসসহ রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স ও ব্যক্তিগত গাড়ি পারাপার করা হয়। তবে পারাপার হতে না পেরে পাটুরিয়া প্রান্তে পণ্যবাহী সহস্রাধিক গাড়ি আটকা পড়ে। এসব গাড়িতে জরুরি পণ্যসহ বিভিন্ন মালামাল দেশের দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করা হবে।

বিজ্ঞাপন

সরেজমিনে দেখা যায়, পাটুরিয়া প্রান্তে রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স, বিভিন্ন ব্যক্তিগত গাড়িসহ কয়েকটি যাত্রীবাহী বাস আটকা পড়েছে। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এসব যানবাহন পাটুরিয়ার তিন নম্বর ঘাটে দুটি ছোট ফেরি রজনীগন্ধা ও চন্দ্র মল্লিকায় উঠে পড়ে। এরপর যাত্রী ও যানবাহন নিয়ে ফেরি দুটি দৌলতদিয়ার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। তবে এ সময় অধিকাংশ যাত্রীকে স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব না মেনে ফেরিতে উঠতে দেখা গেছে।

default-image

এদিকে নদী পার হতে না পারায় পাটুরিয়া প্রান্তে বিপুল পরিমাণ পণ্যবাহী যানবাহন আটকা পড়ে। এসব যানবাহন পাটুরিয়া ট্রাক টার্মিনাল ছাড়িয়ে পাটুরিয়া-উথলী সড়কের প্রায় তিন কিলোমিটার এলাকা পর্যন্ত দীর্ঘ সারিতে অবস্থান করছিল। এ ছাড়া উথলী থেকে আরিচা সদর উদ্দিন ডিগ্রি কলেজ পর্যন্ত ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের চার কিলোমিটার এলাকাজুড়েও দীর্ঘ সারিতে পণ্যবাহী পাঁচ শতাধিক বিভিন্ন যান দাঁড়িয়ে ছিল।

কার্যালয়ের উপমহাব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো. জিল্লুর রহমান বলেন, ফেরি চলাচল বন্ধে সরকারি নির্দেশনা থাকলেও পণ্যবাহী যানবাহন চলাচলে অনুমতি রয়েছে। এতে ঘাট এলাকায় এসব যানবাহনের প্রচণ্ড চাপ রয়েছে। এসব যানবাহনের অসংখ্য শ্রমিকদের মধ্যে করোনা সংক্রমণেরও ঝুঁকি রয়েছে। এসব কারণে আজ বেলা একটার দিকে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে পণ্য পরিবহন সচল রাখতে ফেরি চালু করা হয়। ১০টি ফেরি দিয়ে এসব পণ্যবাহী যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন