বিজ্ঞাপন

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দুপুরে মোহাম্মদ কায়সার আহমেদের বাড়িতে প্রায় ২০-২৫ ফুট গভীরতার একটি পাতকুয়া পরিষ্কার করার জন্য নামেন ওই দুই শ্রমিক। কুয়ায় নেমে দুজন অজ্ঞান হয়ে যান। পরে স্থানীয় লোকজন বিষয়টি বুঝতে পেরে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই শ্রমিককে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন। পরে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

টেকনাফ ফায়ার সার্ভিসের দলনেতা মুকুল কুমার নাথ প্রথম আলোকে বলেন, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পাতকুয়া থেকে দুজনের লাশ উদ্ধার করেন।
টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তন্ময় সরকার বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই দুজনের মৃত্যু হয়েছে। দুজনের শরীরে কোনো ধরনের আঘাতের চিহ্ন নেই। ধারণা করা হচ্ছে, বিষাক্ত গ্যাসের প্রভাব ও অক্সিজেনের অভাবে দুজনের মৃত্যু হয়েছে।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান বলেন, পাতকুয়া পরিষ্কার করতে নেমে মারা যাওয়া দুজনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন