বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় জেলে বেল্লাল হোসেন বলেন, সুন্দরবনসংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে গত মঙ্গলবার রাতে কোরাল মাছ ধরতে জাল ফেলে অপেক্ষা করছিলেন জেলেরা। পরে ওই জালে চারটি মাছ ধরা পড়ে। বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে জেলেরা ওই মাছ পাথরঘাটা বিএফডিসি ঘাটে পাইকারি বাজারে নিয়ে আসেন।

পাথরঘাটা বিএফডিসি মৎস্য পাইকার সমিতির সাবেক সভাপতি মোস্তফা আলম ওই ভোল মাছ চারটি কিনে নেন। এ মাছ বিদেশে পাঠানো হবে।

আরকে ফিশের স্বত্বাধিকারী মৎস্য আড়তদার নজরুল ইসলাম ২ মণ ১০ কেজি ওজনের ওই চারটি ভোল মাছ নিলাম ডাকে বিক্রি করেন। পাথরঘাটা বিএফডিসি মৎস্য পাইকার সমিতির সাবেক সভাপতি মোস্তফা আলম ওই ভোল মাছ চারটি কিনে নেন। প্রতি মণ ৭ লাখ ৯০ হাজার টাকা দরে মোট ১৭ লাখ ৭৭ হাজার ৫০০ টাকায় মাছগুলো বিক্রি হয়েছে।

পাথরঘাটা বিএফডিসি মৎস্য পাইকার সমিতির সাবেক সভাপতি মোস্তফা আলম বলেন, এ মাছকে স্থানীয়ভাবে দাতিনা মাছ বলে। আবার অনেকে ‘দাতিনা ভোল’ও বলে থাকেন। এটি ভোল মাছের এটি প্রজাতি। এ মাছ বিদেশে পাঠানো হবে। তবে এ মাছ দেখতে অনেকটা কোরাল মাছের মতো।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন