default-image

পাবনায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত বেসরকারি কলেজের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর বিষয়ের জন্য নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকেরা এমপিওভুক্তির (বেতন-ভাতার সরকারি অংশ) দাবিতে মানববন্ধন করেছেন। বৃহস্পতিবার জেলা শহরের আব্দুল হামিদ সড়কের প্রেসক্লাব মোড়ে বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশন পাবনা জেলা শাখার ব্যানারে এই মানববন্ধন করা হয়।

বেলা ১১টার দিকে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে নন–এমপিওভুক্ত শিক্ষকেরা এসে শহরে জমায়েত হন। পরে তাঁরা মানববন্ধন করেন। শিক্ষকেরা অবিলম্বে জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা অনুযায়ী তাঁদের এমপিওভুক্ত করার দাবি জানান। পরে দাবির পক্ষে তাঁরা জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দেন। জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ শিক্ষকদের স্মারকলিপি গ্রহণ করে প্রয়োজনী ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন।

মানববন্ধনে ফেডারেশনের পাবনা জেলা শাখার সভাপতি আব্দুল কাদের বিশ্বাসের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন সাধারণ সম্পাদক শাহিনুর রহমান, সহসভাপতি জাফরুল আনাম, শাহীদা খাতুন, মজিবুর নাহার, নুরে আলম সিদ্দিকী প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

বক্তারা বলেন, দেশের বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্স কোর্সের জন্য প্রায় সাড়ে ৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এই শিক্ষকেরা ২৮ বছর ধরে দেশের উচ্চশিক্ষা বিস্তার ও সরকারের জাতীয় শিক্ষানীতি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করছেন। কিন্তু দীর্ঘদিনেও তাঁদের এমপিওভুক্ত করা হয়নি। ফলে তাঁরা চরম মানবেতর জীবন যাপন করছেন। তাই অবিলম্বে তাঁদের এমপিওভুক্তির দাবি করছেন।

সভাপতির বক্তব্যে আব্দুল কাদের বিশ্বাস বলেন, ‘সম্পূর্ণ বৈধভাবে ও সরকারের নীতিমালা অনুসরণ করে আমাদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে এমপিওভুক্ত করা হচ্ছে না। এতে বহু শিক্ষক পরিবার-পরিজন নিয়ে পথে বসার উপক্রম হয়েছেন। অনেকের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। তাই আমরা অবিলম্বে এমপিওভুক্তির মাধ্যমে জীবন–জীবিকা রক্ষার দাবি জানাচ্ছি।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন