default-image

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়নের আওতাপাড়া গ্রামে দুই ভাইকে বেঁধে মারধরের ঘটনায় জিসান হোসেন (৩৫) নামের এক ব্যবসায়ীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। শনিবার সকালে তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দাশুড়িয়া ইউনিয়নের দাঁদপুর গ্রামের আল-আমিন (২৪) ও তাঁর ছোট ভাই আলাল সরদার (১৮) মধু বিক্রি করেন। তাঁরা জিসান হোসেনের ভিলেজ ফ্রেশ ফুড নামে একটি প্রতিষ্ঠানে মধু সরবরাহ করেন। সম্প্রতি ৩০০ কেজি মধু দিয়েছেন। মধুতে ভেজাল থাকার অভিযোগ তুলে জিসান ও তাঁর সহযোগীরা বৈদ্যুতিক খাম্বায় বেঁধে আল-আমিন ও আলালকে মারধরের পাশাপাশি তাঁদের চুল কেটে দেন। এ নিয়ে শুক্রবার প্রথম আলো অনলাইনে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়।

বিজ্ঞাপন

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন, ঘটনাটি জানার পর পাবনার পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন। শুক্রবার বিকেলে এলাকায় গিয়ে প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পায় পুলিশ। তখন ব্যবসায়ী জিসান হোসেনকে আটক করা হয়। রাতে নির্যাতনের শিকার দুই ভাইয়ের বাবা আলম সরদার থানায় মামলা করেন। এতে জিসানকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। অজ্ঞাতনামা আরও তিন-চারজনকে আসামি করেছেন মামলার বাদী।

ওসি আসাদুজ্জামান আরও বলেন, জিসানকে শনিবার সকালে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে আর কেউ জড়িত কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন