default-image

পাবনা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে পুনরায় ভোট গণনার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি), নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব ও সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তার প্রতি এ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি এই ফলাফলের গেজেট এক মাসের জন্য স্থগিত করারও কথা বলা হয়েছে।

এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে আজ বুধবার বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

বিজ্ঞাপন

গত ৩০ জানুয়ারি পাবনা পৌরসভা নির্বাচন হয়। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আলী মুর্তজা বিশ্বাসকে ১২২ ভোটে পরাজিত করে আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী শরিফ উদ্দিন প্রধান বেসরকারিভাবে বিজয়ী হন। সেদিন ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলে মেয়র পদে পুনরায় ভোট গণনা চেয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে আবেদন করেন আলী মুর্তজা বিশ্বাস। পরদিন দুপুরে একই বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে আবেদন করেন তিনি। এরপর ১ ফেব্রুয়ারি সিইসি ও ইসি সচিবের কাছে আবেদন করেন তিনি। এতে ফল না পেয়ে মেয়র পদে পুনরায় ভোট গণনার নির্দেশনা চেয়ে ৪ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টে ওই রিট করেন আলী মুর্তজা বিশ্বাস।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী শাহদীন মালিক, নাহিদ সুলতানা ও মামুনুর রশীদ। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নওরোজ মো. রাসেল চৌধুরী ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এম এম জি সারোয়ার।

পরে আইনজীবী নাহিদ সুলতানা প্রথম আলোকে বলেন, পাবনা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ফলাফলের গেজেট এক মাসের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। সেই সঙ্গে মেয়র পদে পুনরায় ভোট গণনার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন