বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শীদের কয়েকজন জানান, বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে রনি সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের বটতলা ফটকের একটি চায়ের দোকানে বসে ছিলেন। এ সময় দুটি মোটরসাইকেলে ছয়জন যুবক এসে তাঁকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যান। এ সময় রনি রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে এগিয়ে আসেন। দ্রুত পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে রনি সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের বটতলা ফটকের একটি চায়ের দোকানে বসে ছিলেন।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছিম আহম্মেদ বলেন, স্থানীয় সূত্রে জেনেছেন, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে নারায়ণপুর মহল্লার মিরাজুল ইসলাম গ্রুপের সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরে রনির বিরোধ চলছিল। এর জেরেই মিরাজুলের নেতৃত্বে রনির ওপর হামলা হয়েছে। ঘটনার পর পুলিশ এলাকা পরিদর্শন ও বিষয়টি তদন্ত শুরু করেছে। অভিযুক্ত ব্যক্তিদের আটকের জন্য অভিযান চালানো হচ্ছে।

ওসি নাছিম আহম্মেদ আরও বলেন, নিহত রনির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তর জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় রনির পরিবার হত্যা মামলা করবে বলে জানিয়েছে। মামলাটি করা হলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন