ছড়িয়ে পড়া দুটি ছবিতে দেখা যায়, একটিতে হাতে পিস্তল নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন আবু বক্কার। অপরটিতে শুধু হাতের ওপর পিস্তল। ছবিটি ঠিক কবে ফেসবুকে পোস্ট করা হয়েছিল, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে গতকাল বৃহস্পতিবার ছবিটি আলোচনায় আসে। এর পর থেকে পুলিশ তাঁকে খুঁজছে।

পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সভাপতি মো. ফিরোজ আলী তাঁর দলীয় পরিচয় নিশ্চিত করেছেন। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, কোনো অনৈতিক কর্মকাণ্ড ছাত্রলীগ সমর্থন করে না। তিনি (আবু বক্কার সিদ্দিকী) পিস্তল হাতে ছুবি তুলে পোস্ট করলে অবশ্যই বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তাঁরা মনে করেন।

স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ছাত্রলীগ নেতা আবু বক্কার সিদ্দিকী হঠাৎ করে তাঁর নিজের ফেসবুকে পিস্তল হাতে ছবি দুটি পোস্ট করেন। পরে সেই ছবি অন্যদের ফেসবুকে দেখা যেতে থাকে। অনেকে বিষয়টি নিয়ে সমালোচনাও করতে থাকেন। যদিও পরে নিজের ফেসবুক থেকে ছবিটি মুছে দেন আবু বক্কার সিদ্দিকী।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সুজানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল হান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে প্রথম আলোকে বলেন, বিষয়টি জানার পরই অস্ত্র হাতে ছবি তোলা ওই যুবককে গ্রেপ্তারের জন্য খোঁজা হচ্ছে। তিনি বাড়িতে নেই। পলাতক রয়েছেন।

ওসি আবদুল হান্নান বলেন, প্রাথমিকভাবে একটি সূত্র বলছে, ছবিটি ২০১৭ সালে তিনি ফেসবুকে পোস্ট করেছিলেন। অপর একটি সূত্র বলছে, সম্প্রতি পোস্ট করেছিলেন। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তিনি আশা করছেন শিগগিরই আবু বক্কারকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন