করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে নিজ নিজ বাসস্থান থেকে ওজু করে মসজিদে যাওয়া, জামায়াত শেষে কোলাকুলি এবং পরস্পর হাত মেলানো পরিহার করার অনুরোধও জানানো হয় বিজ্ঞপ্তিতে। ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন এবং বহনে সতর্ক থাকা, প্রয়োজনে পুলিশের সহায়তা নেওয়া এবং মুঠোফোনভিত্তিক আর্থিক লেনদেনে প্রতারক চক্র থেকে সজাগ থাকতে বলা হয় গণবিজ্ঞপ্তিতে।

পুলিশের নির্দেশনাগুলোর মধ্যে আরও রয়েছে সিটি করপোরেশনের নির্ধারিত স্থানে এবং ইউনিয়ন এলাকায় উপজেলা প্রশাসনের নির্ধারিত স্থানে পশু জবাই করা, পশু জবাইয়ের বর্জ্য নিদিষ্ট জায়গায় রাখা, স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের সঙ্গে যোগাযোগ করে পশু জবাইয়ের অস্থায়ী স্থান জানা, পশুর হাটে জাল টাকা শনাক্তকরণে ব্যাংকের বুথে জাল টাকা শনাক্তকরণ মেশিনে টাকা পরীক্ষা করা।

ছুটিতে গেলে বা বাসা ত্যাগ করলে দরজা-জানালা সঠিকভাবে তালাবদ্ধ করার কথা জানিয়ে পুলিশ বলেছে, বাসাবাড়িতে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা ব্যবহার, দরজায় নিরাপত্তা অ্যালার্মযুক্ত তালা ব্যবহার, মহল্লা ও বাড়ির সামনে সন্দেহজনক কাউকে ঘোরাফেরা করতে দেখলে স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ি ও থানা–পুলিশকে অবহিত করতে হবে।

রাতে জনবহুল সড়ক দিয়ে চলাচল করা, চলাচলের সময় সঙ্গে থাকা মূল্যবান সামগ্রী বা টাকাপয়সা সম্পর্কে সাবধানতা অবলম্বনের বিষয়েও নির্দেশনা দেওয়া হয় গণবিজ্ঞপ্তিতে। এ ছাড়া গণবিজ্ঞপ্তিতে সন্দেহভাজন মোটরসাইকেল ব্যবহারকারীর বিষয়ে সতর্ক থাকা, বিপণিবিতানে নগদ অর্থ না রাখা এবং প্রয়োজনে জাতীয় জরুরি সেবার ৯৯৯ নম্বরে যোগাযোগের আহ্বান জানানো হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন