default-image

কক্সবাজারের দ্বীপ উপজেলা মহেশখালীতে পুলিশের ভুয়া পরিচয় দিয়ে একটি বসতবাড়িতে ঢুকে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শনিবার গভীর রাতে উপজেলার শাপলাপুর ইউনিয়নের ষাইটমারা এলাকার মাহফুজুর করিমের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। ডাকাতেরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে আলমারি ভেঙে স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা লুটে নিয়ে গেছে।

ভুক্তভোগী মাহফুজুর করিম বলেন, ‘শনিবার রাত আড়াইটার দিকে আসামি ধরার নাম করে পুলিশ পরিচয়ে একদল ডাকাত বাড়িতে ঢোকে। বাড়িতে ঢোকার পর তারা আমাকে ও পরিবারের অন্য সদস্যদের রশি দিয়ে বেঁধে ফেলে। চিৎকার করতে যাতে না পারি, সে জন্য ডাকাতেরা স্কচটেপ দিয়ে সবার মুখ বন্ধ করে দেয়। একপর্যায়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তারা পাঁচটি আলমারি ভেঙে প্রায় ১২ ভরি স্বর্ণালংকার, দেড় লাখ টাকাসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়।’

এ ঘটনায় আজ রোববার বেলা একটা পর্যন্ত থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ করেননি। মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবদুল হাই বলেন, বসতবাড়িতে ডাকাতির ঘটনা তিনি শুনেছেন। প্রকৃত ঘটনা উদ্‌ঘাটনে চেষ্টা চলছে।

একদল ডাকাত পুলিশ পরিচয় দিয়ে মাহফুজুর করিমের বসতবাড়িতে হামলা চালিয়েছে বলে জানান স্থানীয় শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য মুনতাসির মামুন। তিনি বলেন, ডাকাতেরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে আলমারি ভেঙে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ প্রায় ১০ লাখ টাকার মাল লুট করে নিয়ে গেছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন