default-image

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে একটি ভোটকেন্দ্রের পাশে দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় অন্তত তিনজনের শরীরে ছররা গুলি লেগেছে। তাঁদের স্থানীয় বেসরকারি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ রোববার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার দক্ষিণ মগনামা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

সরজমিনে দেখা যায়, ভোটকেন্দ্রের আশপাশে গুলি ছোড়েন কয়েকজন দুর্বৃত্ত। এ কারণে ভোটাররা কেন্দ্রে ঢুকতে পারছেন না। এ ঘটনার জন্য পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছেন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কাশেম ও দোয়াত–কলমের প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের সমর্থকেরা।

দোয়াত–কলম প্রতীকের প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের কয়েকজন সমর্থক অভিযোগ করে বলেন, সকাল থেকে নৌকার সমর্থকেরা গুলি করে কেন্দ্রে না যেতে ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন। তবে নৌকার প্রার্থী আবুল কাশেমের কয়েকজন সমর্থক অভিযোগ করে বলেন, সকাল সাড়ে আটটার দিকে জাহাঙ্গীরের সমর্থকেরা গুলি করেছেন। এ কারণে নৌকার সমর্থকেরা কেন্দ্রে যেতে পারেননি।

তবে পুলিশ ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট সকাল সাড়ে নয়টায় ঘটনাস্থলে পৌঁছালে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

পেকুয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, দক্ষিণ মগনামা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে সকালে একটু সমস্যা হলেও এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এখন স্বাভাবিকভাবে ভোট গ্রহণ চলছে।

পেকুয়া উপজেলায় মোট ভোট কেন্দ্র ৪০টি। ভোটার ১ লাখ ৬ হাজার ২৮৯ জন। নির্বাচনে একজন বিচারিক হাকিমসহ আটজন হাকিম দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়া ৪৮০ জন আনসার ও ১৬৭ জন পুলিশ, পাঁচ প্লাটুন বিজিবি সদস্য আছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন