default-image

অবিলম্বে হ্যান্ড কুলি ও পরিবহন কুলিদের কাজের পরিবেশ ফিরিয়ে দেওয়া, সাধারণ ব্যবসায়ী এবং মুদ্রা বিনিময়কারী পরিবহন, ক্লিয়ারিং ও ফরোয়ার্ডিং (সিঅ্যান্ডএফ) এজেন্ট ও ট্রাকচালক সহকারীর ওপর নিরাপত্তার নামে অত্যাচার বন্ধ করাসহ পাঁচ দফা দাবিতে ভারতের পেট্রাপোল স্থলবন্দরে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি প্রত্যাহার করা হয়েছে। পেট্রাপোল বন্দরের জীবন-জীবিকা বাঁচাও নামের একটি সংগঠনের ডাকে শ্রমিকেরা গত রোববার সকাল থেকে এ কর্মবিরতি শুরু করেন। কর্মবিরতির কারণে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে সব ধরনের আমদানি-রপ্তানি বন্ধ ছিল।
ভারতের পেট্রাপোল স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের দুই দফা দাবি মেনে নেওয়ায় সোমবার সন্ধায় আন্দোলনকারী শ্রমিকেরা তাঁদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে নেন। মঙ্গলবার সকাল থেকে ভারতের পেট্রাপোল এবং বাংলাদেশের বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে দুই দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি শুরু হবে।

বিজ্ঞাপন

ব্যবসায়ীদের একটি সূত্র জানায়, প্রতিদিন বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পাঁচ শতাধিক ট্রাকে বিভিন্ন ধরনের পণ্য আমদানি ও দেড় শতাধিক ট্রাকে বিভিন্ন পণ্য ভারতে রপ্তানি হয়ে থাকে। বাণিজ্যিক কার্যক্রম সম্পাদনে ভারতীয় সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ সদস্যরা বেনাপোল বন্দরে আসা-যাওয়া করতেন। কিন্তু বিএসএফ সম্প্রতি নিরাপত্তাজনিত কারণ দেখিয়ে তাঁদের যাতায়াত বন্ধ করে দেয়। সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়া বিএসএফের ট্রাক তল্লাশিতে দীর্ঘ সময়ক্ষেপণ হচ্ছে। এসব সমস্যা সমাধানে আন্তরিক হতে কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়। কিন্তু কোনো সমাধান না আসায় বাধ্য হয়ে বন্দর জীবন-জীবিকা বাঁচাও সংগঠনটির ডাকে শ্রমিকেরা কর্মবিরতি শুরু করেন। এতে বন্দরের আমদানি-রপ্তানি বন্ধ হয়ে যায়। আজ সোমবার বিকেলে আন্দোলনকারী শ্রমিক সংগঠন জীবন-জীবিকা বাঁচাও কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভারতের পেট্রাপোল স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের বৈঠক হয়। বৈঠকে দুই দফা দাবি মেনে নেওয়া হয়। দুই দফা দাবি হলো ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে পেট্রাপোল চেকপোস্টে হ্যান্ড কুলিরা কাজ করতে পারবেন এবং পণ্যবাহী ট্রাক বেনাপোল ও পেট্রাপোল স্থলবন্দরে রেখে ট্রাকচালকেরা পায়ে হেঁটে দুই বন্দরের মধ্যে যাতায়াত করতে পারবেন। দুই দফা দাবি মেনে নেওয়ায় আজ সন্ধ্যায় কর্মবিরতি প্রত্যাহার করা হয়।

বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সাজেদুর রহমান বলেন, ভারতের পেট্রাপোল স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ দুই দফা দাবি মেনে নেওয়ায় আজ সোমবার সন্ধ্যায় আন্দোলনকারী শ্রমিকেরা তাঁদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।
বেনাপোল স্থলবন্দরের উপপরিচালক (ট্রাফিক) মামুন কবির তরফদার বলেন, ‘শুনেছি কুলিরা কর্মবিরতি প্রত্যাহার করেছেন। তবে ভারতের পেট্রাপোল স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত এ ব্যাপারে আমাদের আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানায়নি। আমরা পেট্রাপোল স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ চালিয়ে যাচ্ছি।’

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন