বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মামলায় মাহাবুব মিয়া উল্লেখ করেছেন, মাস তিনেক আগে ইউনিয়ন ভ্যাক্সিনেটর মতলুবর রহমান তাঁকে প্রণোদনার টাকা পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি ও ছবি নেন। এর পরে তাঁর মাধ্যমে সিম কার্ড তুলে নিয়ে নিজ হেফাজতে রাখেন। গত ২৭ জুন ওই সিম কার্ডে খোলা নগদ হিসাবে প্রণোদনার ১৭ হাজার ১১৭ টাকা জমা হয়। মতলুবর ওই দিনেই টাকা তুলে নেন। পরে মাহাবুব মিয়া বিষয়টি মতলুবরের কাছে জানতে চান। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে বচসা হয়।

একপর্যায়ে ২২ সেপ্টেম্বর দুপুরে উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রওশন আরা বেগম মাহাবুব মিয়াকে মুঠোফোনে তাঁর বাসায় ডেকে নেন। এ সময় তাঁর স্বামী মাহবুব রহমান ও ভ্যাক্সিনেটর মতলুবর রহমান ছয় হাজার টাকা মাহাবুব মিয়ার হাতে দিয়ে ৩০০ টাকার নন জুডিশিয়াল ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করতে বলেন। রাজি না হওয়ায় তাঁরা মাহাবুবকে দিনভর বাসায় আটকে রেখে মারধর করেন এবং গভীর রাতে জোরপূর্বক স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে তাড়িয়ে দেন।

এ ঘটনায় হওয়া মামলায় মতলুবরের পাশাপাশি ভাইস চেয়ারম্যান রওশন আরা বেগমের স্বামী মাহবুব রহমানকেও আসামি করা হয়েছে। বাদী মাহাবুব মিয়া জানান, তিনি পেশায় রাজমিস্ত্রি। কোনো খামারি নন।

মাহাবুব আরও বলেন, প্রণোদনার টাকা দেওয়ার কথা বলা আরও শতাধিক মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন মতলুবর রহমান ও তাঁর সহযোগীরা।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, লাইভস্টক অ্যান্ড ডেইরি ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের (এলডিডিপি) আওতায় পশু খামারিদের প্রণোদনা দেয় সরকার। উপজেলায় প্রথম পর্যায়ে ১ হাজার ৫১৬ খামারিকে ২ কোটি ৬০ লাখ ৭৭ হাজার ২৫০ এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে ৫৯২ জনকে ৬৫ লাখ ৮৬ হাজার ৭৫০ টাকা দেওয়া হয়। এই টাকা দেওয়ার জন্য উপজেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগের তত্ত্বাবধানে খামারিদের তালিকা করা হয়।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয় সূত্র জানায়, যাঁদের ২-৫টি গরু আছে, তাঁরা ১০ হাজার, ৬-৯টি গরুর মালিকেরা ১৫ হাজার, ১০-২০টি গরুর মালিকেরা ২০ হাজার টাকা করে পাবে। এ ছাড়া হাঁসের খামারিদের সর্বনিম্ন ৩ হাজার ৩৭৫ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১১ হাজার ২৫০ এবং ব্রয়লার জাতের মুরগির খামারিদের প্রণোদনা হিসেবে সর্বনিম্ন ১১ হাজার থেকে সর্বোচ্চ ২২ হাজার করে টাকা দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া কাবিলপুর ইউনিয়নের বেতকোপা গ্রামের মমতাজ মিয়া, মালেকা বেগম , পোষাগী বেগম, ববিতা বেগমেরসহ অন্তত ১৫ জনের নামে প্রণোদনার টাকা তুলে আত্মসাৎ করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন