শারীরিক প্রতিবন্ধী আজিমুল হকের বাড়ি লালমনিরহাট সদর উপজেলার নামুড়ি হারাটি গ্রামে। তিনি বাড়ি থেকে প্রায় আড়াই কিলোমিটার দূরে অবস্থিত মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের ঢাকনাই টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে একাদশ শ্রেণিতে পড়ছেন। হেঁটে কলেজে যাতায়াত করা তাঁর জন্য খুবই কষ্টকর হয়ে পড়েছে।

গত ২৭ এপ্রিল প্রথম আলো অনলাইনে ‘দুর্বল পায়ে হেঁটে কলেজে পৌঁছাতে প্রায়ই দেরি হয়ে যায় আজিমুলের’ শিরোনামে সচিত্র সংবাদ প্রকাশ করা হয়। সেই সংবাদ পড়ে স্পেনপ্রবাসী ওই নারী প্রথম আলোর লালমনিরহাট প্রতিনিধির সঙ্গে যোগাযোগ করেন। সেই সঙ্গে আজিমুলের চলাচলের সুবিধার জন্য ব্যাটারিচালিত একটি ট্রাইসাইকেল কিনে দিতে ৩০ হাজার টাকা পাঠানো সিদ্ধান্তের কথা জানান।

আজিমুল হক বলেন, ‘আমার যাতায়াতের সুবিধার জন্য ব্যাটারিচালিত একটি ট্রাইসাইকেল কেনার জন্য আর্থিক অনুদান চেয়ে অনেকের কাছে গিয়েছি। আশা দেওয়া ছাড়া কেউ সহায়তা করার জন্য এগিয়ে আসেননি। শেষ পর্যন্ত স্পেনের মাদ্রিদ শহরের একজন প্রবাসী বাংলাদেশি নারী আমাকে সাহায্য করলেন। এ জন্য আমি সেই নারী ও প্রথম আলোর কাছে কৃতজ্ঞ।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন