বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টা থকে ৩টা পর্যন্ত শহরের গোয়ালচামট ও নিলটুলী এলাকায় এসব অভিযান চালান আদালত। র‍্যাব-৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের সহায়তায় এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার ইমাম রাজী।

অভিযানকালে বাগাট রাজকুমার মিষ্টান্ন ভান্ডার ও বাগাট ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডারকে ৫০ হাজার করে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এর মধ্যে গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে বাগাট রাজকুমার মিষ্টান্ন ভান্ডার নামের একটি মিষ্টির দোকানের ক্ষেত্রে। ফরিদপুরের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার ইমাম রাজী বলেন, বাগাট রাজকুমার মিষ্টান্ন ভান্ডারে প্রতি কেজি দই বিক্রিতে বিক্রেতা ৩০০ গ্রাম কম পরিমাণ দই দিচ্ছিলেন। ক্রেতা এক কেজি দই কিনে প্রতি কেজিতে ৭০০ গ্রাম দই পাচ্ছিলেন, যার ফলে প্রত্যেক ক্রেতা প্রতারিত হচ্ছিলেন এবং বিক্রেতা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন লঙ্ঘন করছিলেন।

অভিযানকালে বাগাট রাজকুমার মিষ্টান্ন ভান্ডার ও বাগাট ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডারকে ৫০ হাজার করে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। সেই সঙ্গে ভেজাল খাবার বিক্রি করায় সুইট হোটেল নামের একটি রেস্তোরাঁকে ১০ হাজার টাকা এবং রান্নার অপরিচ্ছন্ন পরিবেশের কারণে খন্দকার চাইনিজ রেস্তোরাঁকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন