default-image

লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলা থেকে জাল টাকা, ইয়াবা বড়িসহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পিএস পরিচয়দানকারী আবদুল মতিন চৌধুরী (৪৫) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। গতকাল রোববার রাতে উপজেলার চরগাজী ইউনিয়নের চরআফজল গ্রামের বাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ সোমবার দুপুরে কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার মো. শামীম হোসেন এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

র‍্যাব সূত্রে জানা যায়, মতিন প্রধানমন্ত্রীর পিএস, বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিপি ও এমপি-মন্ত্রীদের কাছের লোক পরিচয় দিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে মানুষের কাছ থেকে টাকা আদায় করতেন। তাঁর নাম মতিন চৌধুরী হলেও নিজেকে মতিন চৌধুরী, মিজানুর রহমান ও মিজানুর রহমান মতিন নামে পরিচয় দিতেন। তাঁর বাবার নাম আবদুর রব হলেও তিনি প্রফেসর কামরুল মাস্টারের ছেলে হিসেবে পরিচয় দেন।

বিজ্ঞাপন

র‍্যাব সংবাদ সম্মেলনে জানায়, গতকাল অভিযান চালিয়ে মতিন চৌধুরীর কাছ থেকে ৫০টি ইয়াবা বড়ি, ১ লাখ ৩৯ হাজার টাকার (৫০০ টাকার নোট) জাল নোট, প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত দুটি সিল, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ১০টি ভুয়া প্যাড, দুটি খাম উদ্ধার করা হয়। এ সময় মতিন ও তাঁর বাবার নামের আইডি কার্ড জব্দ করা হয়। তাঁর কাছে এইচএসসি পাশের ভুয়া সনদ পাওয়া গেছে।

খন্দকার মো. শামীম হোসেন বলেন, মতিনের বৈধ কোনো পেশা নেই। তিনি পেশাদার প্রতারক। তিনি জাল টাকা ও মাদক ব্যবসায়ী। গ্রেপ্তারে ঘটনায় তাঁর নামে রামগতি থানায় তিনটি এজাহার দায়ের করা হয়েছে। এ ছাড়া তাঁর বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুর ও নোয়াখালীর বিভিন্ন থানায় ১২টি মামলা রয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন