default-image

ঢাকার সাভারে এক ইতালিপ্রবাসীকে গুলি করে প্রায় ছয় লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে আটক করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। গতকাল শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে বিরুরিয়া সেতুর কাছ থেকে তাঁদের আটক করা হয়। এ সময় তাঁদের কাছ থেকে নগদ টাকা ও ব্যক্তিগত গাড়িসহ অস্ত্র-গুলি জব্দ করে র‍্যাব।

আটক ব্যক্তিরা হলেন পটুয়াখালীর মোস্তাফিজুর রহমান (৩৮), বরিশালের নাসির (৩৮) ও আবদুল বারেক সিকদার (৪৫)। তাঁদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় অস্ত্র, ডাকাতি ও হত্যা মামলা রয়েছে বলে র‍্যাব জানিয়েছে।

র‍্যাব-৪ সূত্র জানায়, গত ২৮ অক্টোবর ঢাকার কেরানীগঞ্জের সিরাজনগর বটতলী এলাকার ইতালিপ্রবাসী মোহাম্মদ আমানুল্লাহ (৪০) ইসলামী ব্যাংক সাভারের আমিনবাজার শাখা থেকে ৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা উত্তোলন করে ট্যাক্সিক্যাবে বাড়ি ফিরছিলেন। সঙ্গে ছিলেন তাঁর স্ত্রী সুমা আক্তার। বেলা ১১টার দিকে ক্যাবটি ভাকুর্তা লোহার সেতু পার হয়ে কয়েক শ ফুট সামনে এগোতেই দুর্বৃত্তরা কয়েকটি মোটরসাইকেলে করে এসে তাঁকে ঘিরে ফেলে। এরপর কয়েকটি গুলি করে টাকার থলে ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। দুর্বৃত্তদের ছোড়া একটি গুলি আমানুল্লাহর বাঁ পায়ে বিদ্ধ হয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁকে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। আঘাত গুরুতর না হওয়ায় সেখানে তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। ওই ঘটনায় সুমা আক্তার বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে সাভার থানায় মামলা করেন।

২৮ অক্টোবর ইতালিপ্রবাসী মোহাম্মদ আমানুল্লাহ (৪০) ইসলামী ব্যাংক সাভারের আমিনবাজার শাখা থেকে ৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা উত্তোলন করে ট্যাক্সিক্যাবে বাড়ি ফিরছিলেন। সঙ্গে ছিলেন তাঁর স্ত্রী সুমা আক্তার। বেলা ১১টার দিকে মোটরসাইকেলে করে এসে তাঁকে ঘিরে ফেলে গুলি করে টাকার থলে ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়।
বিজ্ঞাপন

র‍্যাব জানায়, ঘটনার পর থেকে জড়িতদের গ্রেপ্তারে মাঠে নামে র‍্যাব। র‍্যাবের একটি দল ঘটনার দিনে ব্যাংকের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে বিরুরিয়া সেতুর কাছ থেকে তিনজনকে আটক করে। এ সময় র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে বেশ কয়েকজন পালিয়ে যায়। তারা সবাই ওই এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। র‍্যাব তাদের কাছ থেকে একটি ব্যক্তিগত গাড়ি, দুটি বিদেশি পিস্তল, একটি রিভলবার, ১২টি গুলি, একটি ছুরি, দুটি লোহার পাইপ ও লুণ্ঠিত ৫০ হাজার টাকা জব্দ করে।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা আন্তজেলা ডাকাত দলের সদস্য। দলটিতে অন্তত ১২ জন সদস্য রয়েছে। প্রত্যেকেরই একটি করে ছদ্মনাম রয়েছে। তথ্যদাতার মাধ্যমে তারা টাকা উত্তোলনের তথ্য সংগ্রহ করে।
মোজাম্মেল হক, উপ মহাপুলিশ পরিদর্শক

র‍্যাব-৪-এর অধিনায়ক অতিরিক্ত উপ মহাপুলিশ পরিদর্শক (অ্যাডিশনাল ডিআইজি) মোজাম্মেল হক বলেন, ঘটনার দিন আমানুল্লাহ ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করার পরপরই মুঠোফোনে দলের অন্য সদস্যদের তথ্য দেয় মোস্তাফিজুর রহমান। তথ্য পেয়ে নাসির ও বারেকসহ আরও বেশ কয়েকজন সরাসরি ছিনতাইয়ে অংশ নেয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা র‍্যাবকে এসব তথ্য দিয়েছে। তাদের সাভার থানায় হস্তান্তর করে র‍্যাবের পক্ষ থেকে অস্ত্র আইনসহ ডাকাতির প্রস্তুতির মামলা করা হবে।

অ্যাডিশনাল ডিআইজি মোজাম্মেল হক বলেন, মোস্তাফিজুরসহ গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা আন্তজেলা ডাকাত দলের সদস্য। দলটিতে অন্তত ১২ জন সদস্য রয়েছে। প্রত্যেকেরই একটি করে ছদ্মনাম রয়েছে। তথ্যদাতার মাধ্যমে তারা টাকা উত্তোলনের তথ্য সংগ্রহ করে। তথ্য পাওয়ার পর তারা ডাকাতির দিন ও সময় ঠিক করে পরিকল্পনা সাজায়। এর আগে তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও পর্যবেক্ষণ করে।

আজ শনিবার দুপুরে যোগাযোগ করা হলে সাভার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, র‍্যাবের হাতে আটক ব্যক্তিরা গত ২৮ অক্টোবর ভাকুর্তা এলাকা থেকে ৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত। থানায় হস্তান্তর করার পর তাদের টাকা ছিনতাইয়ের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করে রিমান্ডের আবেদন জানানো হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0