default-image

খোকসা পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন দিতে জেলা আওয়ামী লীগ সুপারিশ করেছিল বর্তমান মেয়র তারিকুল ইসলামের নাম। একক নাম দেওয়ায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের মধ্যে ক্ষোভও সৃষ্টি হয়েছিল। এরপর গতকাল শুক্রবার তারিকুল ইসলামসহ খোকসা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আল মাছুম মুর্শেদ শান্ত দলীয় মনোনয়ন পেতে ফরম কেনেন।
শনিবার বিকেলে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভা শেষে আল মাছুম মুর্শেদের নাম ঘোষণা করা হয়। দলটির কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে আল মাছুম মুর্শেদের মনোনয়নের বিষয়টি উল্লেখ করা হয়।
শনিবার সন্ধ্যায় আল মাছুম মুর্শেদ প্রথম আলোকে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এরপর সন্ধ্যা সাতটার দিকে তাঁর অনুসারী নেতা–কর্মীরা খোকসা পৌর এলাকায় খণ্ড খণ্ড মিছিল বের করেন।

বিজ্ঞাপন

আল মাছুম মুর্শেদ বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছেন। তিনি মোবাইলে প্রথম আলোকে বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছেন, এ জন্য তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞ। নৌকার জন্য নিজের জীবন দিতে রাজি। নির্বাচনে জেতার জন্য সকলের দোয়া ও সমর্থন কামনা করছি। দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করে যাব।’
প্রথম ধাপের নির্বাচনে আগামী ২৮ ডিসেম্বর কুষ্টিয়ার খোকসা পৌরসভার ভোট গ্রহণের দিন নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী ১ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। ভোট নিয়ে খোকসায় চলছে নির্বাচনী তোড়জোড়।
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ থেকে দলীয় মনোনয়ন কে পাচ্ছেন, তা নিয়ে নানা জল্পনাকল্পনা শুরু হয় খোকসায়। এরই মধ্যে গত বুধবার কেন্দ্রে খোকসা পৌরসভার একক প্রার্থী হিসেবে বর্তমান মেয়র তারিকুল ইসলামের নাম প্রস্তাব করে পাঠায় জেলা আওয়ামী লীগ।

মন্তব্য করুন