default-image

ঢাকার ধামরাই উপজেলায় কথিত কবিরাজের কাছে গিয়ে এক নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার উপজেলার একটি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

ধর্ষণের অভিযোগে কথিত কবিরাজ মোহাম্মদ ছালামকে (৪৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তিনি দীর্ঘদিন ধরে কবিরাজি ও তান্ত্রিক চিকিৎসা করে আসছিলেন। এলাকার লোকজন তাঁকে কবিরাজ হিসেবে চেনেন।

পুলিশ জানায়, ওই নারীর সঙ্গে কাতারপ্রবাসী এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক আছে। ২০ দিন ধরে প্রবাসী প্রেমিক তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছেন। প্রেমিকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পেরে প্রতিকারের জন্য ওই নারী গতকাল কথিত ছালাম কবিরাজের কাছে যান। ওই নারীর মুখে সব শুনে অলৌকিকভাবে তাঁর সমস্যার সমাধানের আশ্বাস দেন ছালাম। পরে ওই নারীকে একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করেন তিনি। এ সময় ওই নারীর সঙ্গে যাওয়া দুই তরুণ-তরুণী ছালামের কথামতো কক্ষের বাইরে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, কথিত কবিরাজের কাছে গিয়ে ওই নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন অভিযোগে গতকাল রাতে ধর্ষণ মামলা করেন। মামলার পরপরই অভিযান চালিয়ে ছালামকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ বুধবার তাঁকে আদালতে পাঠানো হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন