বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন ফরিদপুর সদরের বাখুন্ডা এলাকার আবদুল খাদেমের ছেলে আবদুর রহমান (৪১) এবং একই উপজেলার মানিকদাহ গ্রামের আওলাদ ফকিরের ছেলে রিয়াজুল ফকির (২৪)। তাঁরা একসঙ্গে উপজেলার পুখুড়িয়া মাংসের বাজারে মাংস বিক্রি করেন।

ওই দুই মাংস বিক্রেতা মাংস বিক্রির জন্য একটি গাভিন গরু জবাই করেন। ওই সময় গাভিটির পেটে আনুমানিক সাত মাস বয়সী একটি বাছুর পাওয়া যায়।

এলাকাবাসী জানায়, আজ সকাল সাড়ে আটটার দিকে ওই দুই মাংস বিক্রেতা মাংস বিক্রির জন্য একটি গাভিন গরু জবাই করেন। ওই সময় গাভিটির পেটে আনুমানিক সাত মাস বয়সী একটি বাছুর পাওয়া যায়। এ ঘটনা দেখে এলাকাবাসী মাংস, বাছুরসহ ওই দুই মাংস বিক্রেতাকে আটক করে উপজেলা স্যানিটারি পরিদর্শক গোলাম মাওলাকে খবর দেন। গোলাম মাওলা ঘটনাস্থলে এসে পুলিশে খবর দেন। পরে ভাঙ্গা থানার পুলিশ ওই দুই ব্যক্তিকে আটক করে ভাঙ্গা উপজেলা সদরে ইউএনওর কাছে সোপর্দ করেন। পরে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন ইউএনও।

ভাঙ্গার ইউএনও মো. আজিমউদ্দিন বলেন, ২০০৯ সালে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের ৫৩ ধারায় ওই দুই মাংস বিক্রেতাকে ১৫ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠিয়ে দেন তিনি।

মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন