default-image

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় এক প্রবাসীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে ভাঙ্গা পৌরসভার দুই নম্বর ওয়ার্ডের অধীনে নওপাড়া বাসস্ট্যান্ডে একটি চায়ের দোকানে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার সময় ওই প্রবাসী চায়ের দোকানে চা পান করছিলেন।

নিহত প্রবাসীর নাম মাসুদ রানা (৪৯)। তিনি ভাঙ্গা পৌরসভার গজারিয়া মহল্লার হারুন অর রশিদের ছেলে। তিনি বিবাহিত এবং দীর্ঘদিন ধরে সপরিবারে ইতালিতে আছেন। ভাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে তিনি সম্প্রতি বাড়িতে এসেছিলেন। ১১ এপ্রিল এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। তবে করোনার কারণে নির্বাচন স্থগিত করা হয়। ২০ এপ্রিল তাঁর ইতালি ফিরে যাওয়ার কথা ছিল।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, নওপাড়া বাসস্ট্যান্ডে একটি চায়ের দোকানে বসে গতকাল রাত আটটার দিকে চা পান করছিলেন মাসুদ রানা। ওই সময় ১২ থেকে ১৫ জনের একটি দল দেশীয় ধারালো অস্ত্র নিয়ে চায়ের দোকানে ঢুকে তাঁকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে চলে যায়। গুরুতর অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ লুৎফর রহমান বলেন, লাশটি উদ্ধার করে করা হয়েছে। আজ বুধবার ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা হবে। এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জেনেছে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হত্যাকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটেছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন