default-image

ফরিদপুরের মধুখালীতে ভাতিজার লাঠির আঘাতে আহত হয়ে এক সেনাসদস্য মারা গেছেন। আজ মঙ্গলবার বেলা আড়াইটার দিকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

নিহতের নাম উজ্জ্বল মৃধা (৩২)। তিনি মধুখালীর রায়পুর ইউনিয়নের লক্ষ্মী নারায়ণপুর গ্রামের সেকেন্দার মৃধার ছেলে। তিনি অবিবাহিত ছিলেন। কর্মরত ছিলেন ল্যান্স করপোরাল পদে সিলেট সেনানিবাস-২-এ প্যারা ব্যাটালিয়নে। গত ৩০ জানুয়ারি দুই মাসের নিয়মিত ছুটিতে তিনি বাড়িতে এসেছিলেন।

নিহত উজ্জ্বল মৃধা (৩২) সিলেট সেনানিবাস-২-এ প্যারা ব্যাটালিয়নে ল্যান্স করপোরাল পদে কর্মরত ছিলেন।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ১২ ফেব্রুয়ারি বড় ভাই মো. এনায়েত মৃধার (৪৫) কাছে ছোট ভাই উজ্জ্বলের পাওনা ৯ হাজার টাকা নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে বচসা ও কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে এনায়েতের ছেলে আকাশ মৃধা (২৫) বাঁশের লাঠি দিয়ে চাচা উজ্জ্বল মৃধাকে মাথার পেছনে আঘাত করেন। এতে উজ্জ্বল মৃধা গুরুতর আহত হন। এ অবস্থায় তাঁকে প্রথমে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাঁর প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা সিএমএইচে হস্তান্তর করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ বেলা আড়াইটার দিকে উজ্জ্বল মারা যান।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মধুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে আজ বিকেল সাড়ে চারটা পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ করা হয়নি।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন