বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গতকাল ওই স্কুলশিক্ষিকা নিজ বাড়ির গোসলখানায় গোসল করছিলেন। এ সময় সাজু শেখ ও অজ্ঞাত দুই থেকে তিনজন যুবক তাঁদের মুঠোফোনে গোপনে গোসলের ভিডিও ধারণ করছিলেন। বিষয়টি বুঝতে পেরে ওই শিক্ষিকা চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন ছুটে আসেন। তবে ততক্ষণে ভিডিও ধারণকারীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় ওই শিক্ষিকার স্বামী বাদী হয়ে সাজু শেখসহ অজ্ঞাত তিনজনকে আসামি করে থানায় একটি মামলা করেন। পরে পুলিশ অভিযুক্ত সাজুকে গতকাল বিকেলে গ্রেপ্তার করে।

ফুলছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাওসার আলী জানান, এ ঘটনায় থানায় পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা হয়েছে। মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে। আজ দুপুরে গ্রেপ্তার সাজুকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন