বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিএনপি নেতারা জানান, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে জেলায় সমাবেশ হওয়ার কথা ছিল গতকাল মঙ্গলবার বেলা দুইটায়। জেলা প্রশাসন শহীদ শহীদুল্লা কায়সার সড়কের ওয়াপদা মাঠ ব্যবহারের অনুমতি দেয়। কিন্তু ফেনীর সাবেক সাংসদ ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য জয়নাল হাজারীর আকস্মিক মৃত্যু ও দাফনের জন্য বিএনপির সমাবেশের অনুমতি থাকা সত্ত্বেও স্থগিত ঘোষণা করে। এ জন্য মঙ্গলবারের সমাবেশ বুধবার বেলা দুইটায় ঘোষণা করা হয়। জেলা প্রশাসন থেকে সভার আগের অনুমতির পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার সভা করার জন্য দরখাস্ত দেওয়া হয়। সমাবেশে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আবদুল আউয়াল মিন্টুসহ অন্য নেতারা উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

বিএনপির সদস্যসচিব আলাল উদ্দিন বলেন, বিএনপির সভা ভন্ডুল করার জন্য পরিকল্পিতভাবে একই স্থানে জেলা যুবলীগ কর্মিসভা ডেকেছে। তা সত্ত্বেও বিএনপি সমাবেশ করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।

এদিকে জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রাজীব চৌধুরী জানান, তাঁরা বুধবার দুপুর ১২টায় শহরের ওয়াপদা মাঠে কর্মিসভা আহ্বান করেছেন। সভা অনুষ্ঠানের জন্য জেলা প্রশাসনের অনুমতি চেয়ে আবেদনও করা হয়েছে।

জানতে চাইলে জেলা প্রশাসক আবু সেলিম মাহমুদ উল হাসান বলেন, বিএনপিকে মঙ্গলবার ওয়াপদা মাঠে সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বিশেষ কারণে সভা স্থগিত করা হয়। বুধবার সভা করার জন্য আবারও জেলা প্রশাসনের কাছে তারা আবেদন করে। কিন্তু পুলিশ প্রশাসনের মতামত চেয়ে তা পাওয়া যায়নি। আবার বুধবার দুপুরে ওই মাঠে সভা করার জন্য জেলা যুবলীগের পক্ষ থেকেও আবেদন করা হয়েছে। তাদেরও অনুমতি দেওয়া হয়নি। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কা দেখা দেওয়ায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন