default-image

ফেনীতে অন্যকে ফাঁসাতে মিথ্যা মামলা করায় এক ব্যক্তিকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গতকাল সোমবার ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসাইন এ রায় দেন। তাঁর নাম করিম উল্যাহ হাজারী। তিনি ফেনী পৌরসভার মাস্টারপাড়ার বাসিন্দা। পরে তাঁকে ফেনী জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী সালাহ উদ্দিন বলেন, ফেনী পৌরসভার মাস্টারপাড়ার বাসিন্দা করিম উল্যাহ হাজারীর সঙ্গে তাঁর প্রতিবেশী করিম উদ্দিন সরদার ও মো. সুমনের বিরোধ ছিল। ওই বিরোধের কারণে করিম উল্যাহ হাজারী তাঁর দোকান ভাঙচুর ও মারামারির অভিযোগ করে দুজনের বিরুদ্ধে ফেনী সদর থানায় একটি মামলা করেন। ফেনী সদর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আজিজ আহাম্মদ ওই মামলার তদন্ত শেষে বাদীর (করিম উল্যাহ) অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।

বিজ্ঞাপন

পরবর্তী সময়ে ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরীর নির্দেশে মিথ্যা মামলা দায়েরের অভিযোগে ওই মামলার এজাহারকারীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। এতে প্রথম মামলায় ভুক্তভোগী করিম উদ্দিন সরদার ও মো. সুমন এবং মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. আজিজ আহাম্মদ সাক্ষ্য দেন।

আদালত সূত্র জানায়, আদালতে উপস্থিত আসামি (প্রথম মামলার বাদী) করিম উল্যাহ হাজারীর পক্ষে তাঁর আইনজীবী যুক্তিতর্ক শুনানি করে ক্ষমা চান। আসামি নিজেও ক্ষমা চান। আসামি সম্পূর্ণ জ্ঞাতসারে মিথ্যা মামলা করায় আদালত আসামিকে কারাদণ্ড দিয়ে জেলহাজতে পাঠান।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন সহকারী সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) নিমাই লাল সূত্রধর।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন