মাছ ব্যবসায়ী নিশান বলেন, জেলে জয়নালের কাছ থেকে ২০ কেজি ওজনের কোরাল মাছটি ১ হাজার টাকা কেজি দরে ২০ হাজার টাকায় তিনি কেনেন। পরে বিক্রির জন্য রাতেই বাজারে এনে মাছটির ঝুড়িতে রাখেন। অনেকেই মাছটি দেখে গেলেও দাম কম বলায় বিক্রি না করে ফ্রিজে রেখে দেন। আজ রোববার দুপুরে জসিম উদ্দিন নামের এক ব্যক্তির কাছে ১ হাজার ১০০ টাকা কেজি দরে ২২ হাজার টাকায় মাছটি বিক্রি করেন।

কোরাল দ্রুত বর্ধনশীল মাছ বলে জানান উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা তূর্য সাহা। তিনি বলেন, পরিবেশ ভালো পেলে মাছটি সাধারণত ৩০ থেকে ৩৫ কেজি ওজনের হয়ে থাকে। কোনো কোনো সময় এর বেশি ওজনের কোরালও পাওয়া যায়। এ মাছ খুবই সুস্বাদু। তাই জেলেরা দামও ভালো পেয়ে থাকেন। প্রজনন মৌসুমসহ সরকারি বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা মেনে চলায় নদীতে এমন বড় কোরাল পাওয়া গেছে।