বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

১ নম্বর ওয়ার্ডে ওমর ফারুক চৌধুরীকে সভাপতি ও আমজাদ হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক, ২ নম্বর ওয়ার্ডে অর্জুন নাথকে সভাপতি ও শুকদেব চন্দ্র দাসকে সাধারণ সম্পাদক, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে মো. ফারুককে সভাপতি ও জাহাঙ্গীর আলমকে সাধারণ সম্পাদক, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে রেজাউল করিমকে সভাপতি ও ইকবাল হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে জাফর আহামেদকে সভাপতি ও গাজী মনোয়ার হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে ফারুক আহমেদকে সভাপতি ও রফিকুল ইসলাম ভূঁইয়াকে সাধারণ সম্পাদক, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে শরিফুল ইসলামকে সভাপতি ও শাহাদাত হোসেন সাখাওয়াতকে সাধারণ সম্পাদক, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে আবদুল আজিজ তালুকদারকে সভাপতি ও মোহাম্মদ নুরনবীকে সাধারণ সম্পাদক এবং ৯ নম্বর ওয়ার্ডে জয়নাল আবদীনকে সভাপতি ও নবাব শরীফকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে।

১০ নম্বর ওয়ার্ডে মো. সুজন মির্জাকে সভাপতি ও আবদুল্লাহ আল মামুনকে সাধারণ সম্পাদক, ১১ নম্বর ওয়ার্ডে পারভেজ হোসাইনকে সভাপতি ও মোহাম্মদ উল্লাহকে সাধারণ সম্পাদক, ১২ নম্বর ওয়ার্ডে সাইফুল ইসলামকে সভাপতি ও আকবর হোসেন ভূঞাকে সাধারণ সম্পাদক, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে জাহিদ হোসেনকে সভাপতি ও একরামুল হক পাটোয়ারীকে সাধারণ সম্পাদক, ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে সাহাদাত হোসেনকে সভাপতি ও নজরুল ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক, ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে ছালেহ আহম্মদকে সভাপতি ও দেলোয়ার হোসেন পাটোয়ারীকে সাধারণ সম্পাদক, ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে সামাউন নুরকে সভাপতি ও মিনহাজুল ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক, ১৭ নম্বর ওয়ার্ডে শহিদুল ইসলামকে সভাপতি ও খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমানকে সাধারণ সম্পাদক, ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে ইমাম হোসেন মজুমদারকে সভাপতি ও নুর মোহাম্মদ ফামেলকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে।

ফেনী পৌর যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম ভূঞা বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারীর নির্দেশনা অনুযায়ী পরিচ্ছন্ন ও দীর্ঘদিনের পরীক্ষিত নেতাদের প্রাধান্য দিয়ে নতুন কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন