স্থানীয় দুজনের ভাষ্য, গতকাল সন্ধ্যার পর জয় প্রতিবেশী আবদুল মজিদের বাড়িতে যায়। মজিদের সঙ্গে কথা বলে ফেরার পথে মজিদদের বাড়ির ফটকের ঢালাই করা অংশে হেলান দিয়ে দাঁড়ায় জয়। এতে ঢালাই করা ফটকের সানসেট পুরোটা ভেঙে জয়ের ওপর পড়ে। এ সময় স্থানীয় লোকজন জয়কে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নেন শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। সেখানে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জয়ের খালা সুফিয়া খাতুন বলেন, জয় ছোট থাকতে তার মা মারা যায়। ছোটবেলা থেকে জয় তাঁর কাছে বড় হয়েছে।

শেরপুর টাউন পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) ছাম্মাক হোসেন বলেন, কিশোরের সুরতহাল তৈরি করা হয়েছে। মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে তার পরিবার থেকে কোনো অভিযোগ দেওয়া হয়নি। এ ঘটনায় শেরপুর থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।