default-image

বগুড়ার শেরপুরে মহাসড়কে যাত্রীবাহী একটি বাসের ধাক্কায় দুই ট্রাকচালক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তাঁদের সহকারী (হেলপার) আরও দুজন। ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের উপজেলার মির্জাপুর আমবাগান এলাকায় আজ শুক্রবার বিকেল চারটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত দুজন হলেন আবু সাঈদ (২৪) ও আবু বক্কার (২৬)। তাঁরা দুজন দুটি বালুবাহী ট্রাকের চালক। তাঁদের বাড়ি উপজেলার বাগড়া গ্রামে। দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিরা হলেন ওই দুই ট্রাকচালকের সহকারী (হেলপার) জাকির হোসেন (২৬) ও সৈকত মণ্ডল (২২)। হতাহত ব্যক্তিদের নাম-পরিচয় নিশ্চিত করেন শেরপুরের ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা রতন হোসেন।

দুর্ঘটনার পরপরই তাঁদের উদ্ধারে এগিয়ে আসেন স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এবং শেরপুরের হাইওয়ে পুলিশ সদস্যরা। আহত দুজনকে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।
বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের সম্প্রসারণকাজে নিয়োজিত বালুবাহী দুটি ট্রাক মাটি এনে মির্জাপুর আমবাগানের কাছে ফেলে মহাসড়কের পশ্চিম পাশে খালি অবস্থায় দাঁড়িয়েছিল। এ সময় বেপরোয়াভাবে আসা ঢাকা থেকে রংপুরগামী একটি বাস একটি খালি ট্রাককে ধাক্কা মারে। এ সময় ট্রাকটি পিছিয়ে এসে তার পেছনে থাকা অপর খালি ট্রাকটির সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে দুই খালি ট্রাকের মাঝখানে দাঁড়িয়ে থাকা চার চালক ও তাঁদের সহকারী চাপা পড়ে গুরুতর আহত হন। এতে ঘটনাস্থলেই বালুবাহী ট্রাকের দুই চালক নিহত হন। আহত হন দুই সহকারী।

দুর্ঘটনার পরপরই তাঁদের উদ্ধারে এগিয়ে আসেন স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এবং শেরপুরের হাইওয়ে পুলিশ সদস্যরা। আহত দুজনকে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

শেরপুর হাইওয়ে পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আশরাফুল ইসলাম বলেন, দুর্ঘটনার পরই বাসটির চালক ও তাঁর সহকারী পালিয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় ট্রাক ও বাস পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য পড়ুন 0