বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রাত ১০টায় অতুল সাহা নামে বন্দরের এক ব্যবসায়ী দোকান বন্ধ করে চলে যান। পরে মধ্যরাতে ওই দোকানে আগুন জ্বলে ওঠে। দোকানে পেট্রল, ডিজেল, কেরোসিন ও গ্যাস সিলিন্ডার থাকায় দ্রুত আগুন আশপাশে ছড়িয়ে পড়ে।

এতে একে একে ওই দোকানসংলগ্ন বেশ কয়েকটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান, আটটি মোটরসাইকেল, একটি বসতবাড়ি ও একটি অনাবাসিক হাফেজিয়া মাদ্রাসা আগুনে পুড়ে যায়।

default-image

খবর পেয়ে শিবগঞ্জ, সোনাতলা, কাহালু ও বগুড়া সদর ফায়ার সার্ভিসের চারটি দল প্রায় দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আজ বুধবার ভোররাতের দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

বগুড়া ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন কর্মকর্তা আবদুল হালিম প্রথম আলোকে বলেন, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন