বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বগুড়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ প্রথম আলোকে বলেন, বগুড়া শহরের কইপাড়া এলাকার হৃদয় স্টোরের মালিক রাকিব হৃদয় মঙ্গলবার রাতে দোকানে বসে বিকিকিনি করছিলেন। রাত সোয়া আটটার দিকে দোকানে সিগারেট ধরাতে আসেন স্বাধীন ও আশিক নামের দুই বখাটে যুবকসহ তাঁর সহযোগীরা। সিগারেটে আগুন ধরাতে নিষেধ করলে বখাটেদের সঙ্গে তাঁর বাগ্‌বিতণ্ডা হয়।

একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে রাকিবকে তাঁরা মারধর করেন। এ সময় ছেলের চিৎকারে এগিয়ে এলে বাবা মামুনুর রশিদের সামনে প্রথমে ছেলেকে এবং পরে বাবাকেও ছুরিকাহত করা হয়।

দুজনকে উদ্ধার করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আজ রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছেলে রাকিব মারা যান।

পুলিশ পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ আরও বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। রাত নয়টা পর্যন্ত এ ঘটনায় কোনো মামলা হয়নি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন